মধ্যরাতে মেঘনা নদীতে যাত্রীবাহী লঞ্চে আগুন

চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে যাত্রীবাহী লঞ্চে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। তবে আগুন লঞ্চে ছড়িয়ে পড়ার আগেই তা নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছেন লঞ্চের কর্মীরা। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে মতলব উত্তরের মোহনপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বিআইডব্লিউটিএ-এর চাঁদপুরের বন্দর কর্মকর্তা মো. কায়সারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, শনিবার রাত ১২টার দিকে মতলব উত্তরের মোহনপুর এলাকায় মেঘনা নদীতে যাত্রীবাহী লঞ্চটির ইঞ্জিন রুমে আগুন লাগে। এ খবরে যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে লঞ্চের কর্মীদের প্রচেষ্টায় অল্প সময়ের মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ফলে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

এমভি সুরভী-৯ নামের লঞ্চটি ঢাকা থেকে বরিশাল যাচ্ছিল জানিয়ে কায়সারুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে লঞ্চটি মোহনপুর এলাকায় নোঙ্গর করে রাখা হয়েছে। যাত্রীরা নিরাপদে আছেন।

তবে ফের দুর্ঘটনার আশঙ্কা থেকে লঞ্চটি আপাতত বরিশাল যেতে দেওয়া হবে না। যাত্রীদের অন্য কোনো লঞ্চে করে গন্তব্যে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানান বিআইডব্লিউটিএ-এর চাঁদপুরের বন্দর কর্মকর্তা।

এর আগে গত ২৩ ডিসেম্বর দিবাগত গভীর রাতে ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে ঢাকা থেকে বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপক সংখ্যক হতাহতের ঘটনা ঘটে। ওই লঞ্চেও ইঞ্জিন থেকে ছড়িয়ে পড়া আগুনে দগ্ধ হন অনেকে। আগুন থেকে বাঁচতে নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে আহত হন অনেকে। লঞ্চটিতে আগুন লাগার পরও সেটি তীরে না ভিড়ে অনেকক্ষণ চলে। এতে পুরো লঞ্চে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

আরও