‘তৈমুর কাকাকে’ সঙ্গে নিয়েই কাজ করতে চাই: আইভী

 প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকারকে সঙ্গে নিয়েই মানুষের জন্য কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে বেসরকারি ফলাফলে নির্বাচিত আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী।

তিনি বলেন, জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত মানুষের জন্য কাজ করে যেতে চাই। নির্বাচনে জয়ী হতে কোনো ভয় বা সংশয় ছিল না।

রোববার ভোট শেষে রাত ৯টার পরে নিজবাড়িতে সাংবাদিকদের কাছে প্রতিক্রিয়া এসব কথা জানান আইভী। এ নিয়ে মেয়র পদে টানা তৃতীয়বার বিজয়ী হলেন তিনি।

তৃতীয়বারের মতো জয় পেয়ে আইভী দল-মতের ঊর্ধ্বে থেকেই নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী তৈমুরের সঙ্গে আলোচনা করেও কাজ করার কথাও বলেছেন তিনি।

নির্বাচনী প্রচারে তৈমুর আলম যেসব পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন, সেগুলো বিবেচনায় নিয়ে কাজ করার কথা বলেছেন আইভী। এসময় তৈমুরকে কাকা সম্বোধন করে আইভী বলেন, ‘কাকা তো আগেও অনেক সময় কথা বলেছেন, সহযোগিতা করেছেন। উনাকে সম্মান করি, শ্রদ্ধা করি। অবশ্যই উনাকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করব। ’

আইভী বলেন, জনগণ আমাকে ভোট দিয়েছে। আমি যেন প্রধানমন্ত্রী এবং জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী ঈমানের সঙ্গে কাজ করতে পারি। আমার বাবা এবং আমি জনগণের জন্য বহু উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। আমার বিশ্বাস ছিলো, জনগণ আমাকে কখনো ঠকাবে না।

এর আগে রোববার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে একটানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে ভোটগ্রহণ। নির্বাচনে ১৯২টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হয়েছে। এবার পুরো সিটির নির্বাচন এবার ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ সিটিতে ভোটার সোয়া ৫ লাখ। মেয়র পদে সাতজন; সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৩৪ ও কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন প্রার্থী রয়েছেন এ নির্বাচনে। সিটিতে ভোট কেন্দ্র রয়েছে ১৯২টি, ভোটকক্ষ ১ হাজার ৩৩৩টি, ভোটার ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১। এর মধ্যে পুরুষ ২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৪৬ ও মহিলা ২ লাখ ৫৭ হাজার ৫১১। অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ছাড়াই শেষ হলে নাসিক নির্বাচন।

আরও