মিশরের কাছে বিশাল অংকের অস্ত্র বিক্রি করছে আমেরিকা

মিসরে মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে বিরাজমান উদ্বেগের মধ্যে দেশটির কাছে ২৫০ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির অনুমোদন দিয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন।

মিসরের মানবাধিকার পরিস্থিতি বিবেচনায় গত বছর দেশটির কাছে সামরিক সরঞ্জাম সহায়তার চালান সরবরাহ বন্ধ রাখে মার্কিন সরকার।

চলতি বছরও তা আটকে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন কংগ্রেসে ডেমোক্র্যাট দলের সদস্যরা।

তারা বলেছেন, মিসরের মানবাধিকার পরিস্থিতি অস্ত্র বিক্রির পরিবেশের সঙ্গে মোটেই সংগতিপূর্ণ নয়। আমেরিকা থেকে কায়রোর কাছে অস্ত্র পাঠাতে হলে অবশ্য ওই মানদণ্ড রক্ষা করতে হবে।

এর কয়েক ঘণ্টা পর মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর ২৫০ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির অনুমোদনের ঘোষণা দেয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর সুস্পষ্ট করে বলেছে, আমেরিকার পক্ষ থেকে যে ১৩ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা আটক রাখা হয়েছে তার সঙ্গে ২৫০ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির সম্পর্ক নেই।

মিসরের কাছে ২২০ কোটি ডলারে ১২টি সি-১৩০ জে-৩০ সুপার হারকিউলেস বিমান ও প্রয়োজনীয় সামরিক সরঞ্জামাদি এবং ৩৫ কোটি ৫০ লাখ ডলারের তিনটি রাডার বিক্রির অনুমোদন দিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর।

আরও