ইউক্রেনের খারকিভে হামলায় নিহত ৬

ইউক্রেনের খারকিভে রাশিয়ার হামলায় অন্তত ছয়জন নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন দেশটির এক গভর্নর। এ হামলায় আহত হয়েছেন আরও ১৬ জন। ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহরটিতে রাশিয়ার এ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কিও।

জেলেনস্কি বলেছেন, বুধবার (১৭ আগস্ট) রাতের ওই হামলায় একটি ফ্ল্যাট পুরোপুরি ধ্বংস হয়েছে। তিনি নিন্দা জানিয়ে বলেন, এ হামলার কোনো যৌক্তিকতা নেই এবং এতে আক্রমণকারীদের শক্তিহীনতাই প্রকাশ পায়।

এক টেলিগ্রাম বার্তায় তিনি লেখেন, ‘আমরা এটি ভুলে যাবো না এবং প্রতিশোধ নেবো’।

মেয়র ইগর তেরেখভ টেলিগ্রামে বলেছেন, রুশ সেনাদের অভিযানের ফলে উত্তর-পূর্ব শহরের ভবনটিতে আগুন লেগে যায়।

জেলেনস্কির গণমাধ্যমের একটি টিম হামলার পরের ফুটেজ শেয়ার করেছে। এতে দেখা যায় যে ভবনের বাইরে জড়ো হওয়া জরুরি সেবা সার্ভিসের সদস্যরা উদ্ধার কাজ চালাচ্ছেন।

আঞ্চলিক গভর্নর ওলেগ সিনহুবভ টেলিগ্রামে বলেছেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত, সালটিভকা জেলায় সহিংসতায় ৬ জন নিহত ও ১৬ জন আহত হয়েছেন।

যুদ্ধের প্রথম দিকে খারকিভ রাশিয়ান সেনাদের লক্ষ্যবস্তু ছিল। কিন্তু রুশ সৈন্যরা শহরটি দখল করতে পারেনি। যদিও মস্কোর টার্গেট এখন ইউক্রেনের পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চল।

১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের সময় রাশিয়ার শাসন থেকে মুক্ত হওয়া ইউক্রেন, মস্কোকে অভিযুক্ত করেছে যে তারা আধিপত্য বিস্তারে এ হামলা চালাচ্ছে।

মস্কো ২০১৪ সালে ক্রিমিয়া দখলে নেয়। ইউক্রেনের দোনেটস্ক এবং লুহানস্কের বিচ্ছিন্নতাবাদীদেরও সমর্থন করছে তারা।

আরও