নিরপেক্ষ রাজ্য গড়তে নিউ ইয়র্কে লিঙ্গ কর্তন আইন

 নিউ ইয়র্ক রাজ্যে আইন করে লিঙ্গ কর্তন করা হয়েছে। লিঙ্গ-নিরপেক্ষ রাজ্য গড়ার প্রয়াসে ‘সেলস ম্যান’ এখন থেকে ‘সেলস পারসন’ হিসেবে পরিচিত হবেন। এছাড়া ‘কাউন্সিল ম্যান’ হবেন ‘কাউন্সিল পারসন’।

গতকাল বৃহস্পতিবার নিউ ইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হোকুল লিঙ্গ-নিরপেক্ষ শব্দ প্রয়োগের ওই আইনে সই্ও করেছেন।

অ্যাসেম্বলিম্যান ড্যানি ও’ডোনেলের সাথে বিলটি স্পন্সরকারী সিনেটর আনা ক্যাপলান বলেন, ‘চাকরির কোনো লিঙ্গ নেই। তবে দুর্ভাগ্যজনকভাবে, আমাদের রাজ্যের অনেক আইনে এখনো লিঙ্গবাচক শব্দ ব্যবহৃত হয়।’

‘সেলস ম্যান’ শব্দটির বদলে ‘সেলস পারসন’ ব্যবহারের মধ্যেই পরিবর্তন সীমিত নেই। সেইসাথে ‘হিজ’ বা ‘হার’ শব্দও ব্যবহার করা যাবে না। এর বদলে ‘দেয়ার’ শব্দ ব্যবহার করতে হবে বলে নতুন আইনে বলা হয়েছে।

ও’ডোনেল তার বিবৃতিতে বলেন, ‘আমরা চাই নিউ ইয়র্কের কর্মস্থলগুলোতে বৈচিত্র্য বিরাজ করুক।’

এছাড়া আরেকটি বিলও গভর্নর হোকুল অনুমোদন করেছেন। স্টেট সিনেটর সামরা ব্রাক ও ক্যারি ওয়ারনারের স্পন্সর করা বিলে স্থানীয় আইনসভায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তির পদবি ‘কাউন্সিল ম্যান’ শব্দটির বদলে ‘কাউন্সিল মেম্বার’ করার কথা বলা হয়েছিল। গভর্নর তাতেও সই করেছেন।

তুলনামূলক কম বিতর্কের মাধ্যমেই অ্যাসেম্বলি ও স্টেট সিনেটে আইন দুটি পাস হয়েছে।

আরও