সাংবাদিককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, মূল আসামীসহ আটক ৬

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আব্দুল বাছিতকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছিল সন্ত্রাসীরা। ঘটনার রাতেই কমলগঞ্জ থানার পুলিশ সন্দেহজনক হিসেবে উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামের মৃত তাহির মিয়ার দুই ছেলে আকলিছ মিয়া (৪১) ও মকবুল মিয়া(৩৮) কে আটক করেছিল।

এ ঘটনায় ৪ দিন পর ৬ জনের নাম উল্লেখ্য করে কমলগঞ্জ থানায় একটি হত্যার চেষ্টা মামলা করা হলে আটক ২ জনকে মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

এ ঘটনার ৭দিন পর র‍্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পের সদস্যরা এ মামলার মূল আসামী কাওছার মিয়া (৩৫) ও ফারুক মিয়াকে (৩৪) আটক করে রোববার (২১ আগস্ট) কমলগঞ্জ থানায় সোপর্দ করেছে।

অন্যদিকে রোববার এ মামলায় মৌলভীবাজার আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে নাজির মিয়া (৩৭) ও লিটন মিয়া (৩৮) কে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন। এ নিয়ে এ মামলায় ৬জন আসামীকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (১৩ আগস্ট) বেলা দেড়টায় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে মোটরসাইকেল আটকিয়ে দৈনিক খবরপত্র কমলগঞ্জ প্রতিনিধি সাংবাদিক বাছিতকে এলোপাথাড়ি ভাবে দায়ের কুপে ২ হাত ও ২ পায়ে বড় ধরণের ক্ষতের সৃষ্টি হলে তাকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে জরুরী ভিত্তিতে অস্ত্রোপচার করা হয়। সাংবাদিক আব্দুল বাছিত বর্তমানে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

 

আরও