চ্যাম্পিয়নদের বাস ঘিরে বিমানবন্দরে উচ্ছ্বাস

সাফ ফুটবল জয়ী নারীদলের সংবর্ধনা দিতে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেছে ছাদ খোলা বাস। বিমানবন্দরে প্রবেশের সময় থেকে বাইরে এবং ভেতরে উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন আসা এখানে অপেক্ষমান দর্শনার্থীরা। এসময় ‘জয় বাংলা’, ‘বাংলাদেশ বাংলাদেশ’ স্লোগান দিতে দেখা যায়।

স্লোগান ছাড়াও বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে উড়িয়েছেন অনেকেই। বিমানবন্দরে সংবর্ধনা দিতে এসেছেন বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ। এছাড়া ফুল হাতে সংবর্ধনা দিতে এসেছেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নারী খেলোয়াড়রা। বিকেএসপির অ্যাথলেট মোসাম্মৎ আইরিন আখতার বলেন, বাংলাদেশের মেয়েরা সাফ জিতে দেশের সুনাম বাড়িয়েছে। তারা প্রমাণ করেছে নারীরা খেলাধুলায় অনেক এগিয়ে।

মিরপুর থেকে আসা ফরিদ জানান, বাংলাদেশের ছেলেরা যা পারেনি মেয়েরা করে দেখিয়েছে। তারা দেশের গর্ব, আমাদের গর্ব। তাদের জন্য এদেশের সবকিছু হওয়া উচিত।

প্রথমবারের মতো সাফজয়ী নারীদের বরণ করে নিতে ইতোমধ্যে সাজানো হয়েছে ছাদ খোলা দোতলা বাস। আর এই বহরে থাকছে সুসজ্জিত আরও তিনটি পিকআপ। এর চারপাশে লাগানো হয়েছে ব্যানার। আয়োজকরা জানান, ভাড়া করা এসব পিকআপে বসানো হয়েছে সাউন্ড সিস্টেম। এছাড়া আছে ব্লাস্টার।

এছাড়া স্বাগত জানাতে পথের বিভিন্ন জায়গায় ঝুলছে ব্যানার ও ফেস্টুন। সেখানে লেখা, অভিনন্দন চ্যাম্পিয়ন্স। পিকআপে গান বাজবে, জ্বলে ওঠো বাংলাদেশ, জেগে ওঠো বাংলাদেশ।
চ্যাম্পিয়নদের বরণ করতে আসা ফুটবলপ্রেমীদের উচ্ছাস বিমানবন্দরের সামনে চ্যাম্পিয়নদের বরণ করতে আসা ফুটবলপ্রেমীদের উচ্ছাস বিমানবন্দরের সামনে

সাবিনা খাতুনদের দল বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে ঢাকা এসে পৌঁছান। তাদের বরণ করে নিতে যৌথভাবে প্রস্তুতি নিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। বিমানবন্দর থেকে কাকলী-বনানী পার হয়ে জাহাঙ্গীর গেট দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে যাবে চ্যাম্পিয়নদের ছাদখোলা বাস। বিজয় সরণি, তেজগাঁও হয়ে পুনরায় ফ্লাইওভার দিয়ে মৌচাক হয়ে এই শোভাযাত্রা কাকরাইলে আসবে। কাকরাইল থেকে ফকিরাপুল-আরামবাগ। তারপর মতিঝিল শাপলা চত্বর ঘুরে পৌঁছাবে বাফুফে ভবনে।

আরও