২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগী ৭০০ ছাড়াল

করোনার পঞ্চম ঢেউয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৭০০ জন। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৫ ছুঁইছুঁই। এই সময়ে মৃত্যু হয়েছে একজনের।

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ৪ হাজার ৮২৮ নমুনা পরীক্ষায় ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে ৭০৮ জনের দেহে।

করোনার আগের চারটি ঢেউয়ের মতো এবারও রোগী বেশি পাওয়া যাচ্ছে রাজধানীতে। নতুন করে যারা শনাক্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে ৫১৬ জনই দেশের প্রধান শহরের বাসিন্দা।

২০২০ সালের মার্চে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্তের পর মোট চারটি ঢেউ পাড়ি দিয়ে দেশ এখন পঞ্চম ঢেউয়ে। তবে চতুর্থ ঢেউ থেকেই দেখা যাচ্ছে দেশবাসীর মধ্যে এই ভাইরাস আগের মতো আর আতঙ্ক তৈরি করছে না। আর পঞ্চম ঢেউয়ে মৃত্যু তুলনামূলক কম।

নতুন শনাক্ত রোগীদের নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২০ লাখ ২৫ হাজার ১৯৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সেরে উঠেছেন ৬৮৬ জন। সব মিলিয়ে দেশে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৬৫ হাজার ১৮৮ মানুষ।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার পর ২০২১ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি তা নিয়ন্ত্রণে আসে। মার্চের শেষে আবার দ্বিতীয় ঢেউ আঘাত হানে। সেটি নিয়ন্ত্রণে আসে ওই বছরের ৪ অক্টোবর।

গত ২১ জানুয়ারি দেশে করোনার তৃতীয় ঢেউ দেখা দেয়। প্রায় তিন মাস পর ১১ মার্চ তা নিয়ন্ত্রণে আসে। তিন মাস করোনা স্বস্তিদায়ক পরিস্থিতিতে ছিল। এরপর ধারাবাহিকভাবে বাড়তে শুরু করে সংক্রমণ। তারপর চতুর্থ ঢেউ শেষে এখন পঞ্চম ঢেউ আঘাত হেনেছে।

আরও