ফ্রান্সজুড়ে শ্রমিক ধর্মঘট, বন্ধ আইফেল টাওয়ার

ফ্রান্সজুড়ে ধর্মঘটের কারণে অচল হয়ে পড়ে দেশটির পরিবহন ব্যবস্থা। ধর্মঘটের কারণে জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র আইফেল টাওয়ারে বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। মজুরি বৃদ্ধি ও সরকারের পেনশন সংস্কার প্রস্তাবের বিরোধিতায় বৃহস্পতিবার এই ধর্মঘট শুরু হয়েছে।

স্কুল, ফার্মেসি গ্যাস স্টেশন, রেলযোগাযোগ ও বাস চলাচল ধর্মঘটের কারণে বিঘ্নিত হয়েছে। টুইটারে আইফেল টাওয়ার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ধর্মঘটের কারণে স্থাপনাটি বন্ধ করা হয়েছে। তবে আইফেল টাওয়ারের নিচের উন্মুক্ত অংশ এসপ্লানেদ খোলা থাকবে এবং কোনও ফি দিতে হবে না।

শ্রমিকদের তিনটি ইউনিয়নের পক্ষ থেকে এই ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছে। সিজিটি, এফএসইউ ও সোলিডায়রিজ নামের তিনটি ইউনিয়নের দাবি, ন্যূনতম মজুরি ২০০০ হাজার ইউরো ও সপ্তাহিক কর্মঘণ্টা ৩২ ঘণ্টা। এছাড়া অবসরের বয়স ৬০ বছরে কমিয়ে আনার দাবিও তুলেছে তারা।

ইউনিয়নগুলোর পক্ষ থেকে ফ্রান্সজুড়ে দুই শতাধিক বিক্ষোভ, সমাবেশ ও মিছিল আয়োজন করা হয়েছে। তাদের স্লোগান হলো, ‘মজুরি বাড়াও, অবসরের বয়স নয়’।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর প্রস্তাবিত পেনশন সংস্কার কর্মসূচির আওতায় অবসরের বয়সসীমা ৬২ বছর থেকে বাড়িয়ে ৬৫ বছর করার কথা বলা হয়েছে। শ্রমিকরা এই সংস্কারের বিরোধিতা করে আসছেন। আগামী মাসে পার্লামেন্টে প্রস্তাবটি নিয়ে আলোচনা হবে।

ধারণা করা হচ্ছে, বিরোধীরা যদি বিলটির বিরোধিতা করে তাহলে ম্যাক্রোঁ পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে নতুন নির্বাচন আয়োজন করতে পারেন। এছাড়া আগামী বছর পর্যন্ত পেনশন সংস্কার মূলতবী রাখারও ঘোষণা দিতে পারেন। সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

আরও