থাইল্যান্ডে ডে-কেয়ার সেন্টারে বন্দুক হামলা, ৩৪ জন নিহত

থাইল্যান্ডের একটি ডে-কেয়ার সেন্টারে বন্দুকধারীর গুলিতে ৩৪ জন নিহত হয়েছে। নিহত ৩৪ জনের মধ্যে ২৩ জনই শিশু।

পুলিশের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বন্দুক হামলাকারী একজন সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা। তবে ঘটনার পর ওই হামলাকারী আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম।

স্থানীয় পুলিশ মুখপাত্রের বরাতে এমনটাই জানিয়েছে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

থাইল্যান্ডের কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরোর ফেসবুক পেজে সম্ভাব্য হামলাকারী সাবেক পুলিশ কর্মকর্তার নাম ‘পানিয়া খামরাব’ বলা হয়েছে এবং তার একটি ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে। তবে পুলিশের বিবৃতিতে বন্দুকধারীর আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়নি।

এর আগে একজন সরকারি মুখপাত্র বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী সব সংস্থাকে ব্যবস্থা নিতে এবং অপরাধীকে গ্রেপ্তারের জন্য ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

থাইল্যান্ডে এ ধরনের ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা খুবই বিরল। তবে ২০২০ সালে সম্পত্তিসংক্রান্ত বিষয় নিয়ে ক্ষুব্ধ এক সৈনিক ৪টি স্থানে হত্যাযজ্ঞ চালান। তার হামলায় ২৯ জন নিহত ও ৫৭ জন আহত হয়েছিল।

The post থাইল্যান্ডে ডে-কেয়ার সেন্টারে বন্দুক হামলা, ৩৪ জন নিহত appeared first on Sylhet Voice.

আরও